• আজ- সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১১:২৫ অপরাহ্ন

বোর্ড ফি মানে না নেকজানিয়ার প্রধান শিক্ষক শিবাশীষ

রিপোর্টারঃ / ৯৯ বার ভিজিট
আপডেটঃ সোমবার, ২০ মে, ২০২৪

জি এম মাছুম বিল্লাহঃ সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ কলবাড়ি নেকজানিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিতর্কিত প্রধান শিক্ষক শিবাশীষ মন্ডলের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই। ইতিপূর্বে বিভিন্ন অনিয়ম দুর্নীতির কারণে স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় তার বিরুদ্ধে একাধিক সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।
নিয়োগ বাণিজ্য, ছাত্র ছাত্রীদের নিকট থেকে ভর্তি, পরীক্ষা ও রেজিস্ট্রেশনের সময় অতিরিক্ত অর্থ আদায়সহ স্কুলের স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তির থেকে আসা টাকার হিসাব না দেওয়া, শিক্ষকদের সাথে অসদাচরণ, বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে সঠিক সময়ে স্কুলে না আসাসহ বিভিন্ন অভিযোগে তিনি সবসময় আলোচনা শীর্ষে থাকেন।
এবার তার বিরুদ্ধে ছাত্র ছাত্রীদের নিকট থেকে সেশন চার্জ ও রেজিস্ট্রেশন ফি বাবদ অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ছাত্র ছাত্রী ও অভিভাবকদের অভিযোগ প্রধান শিক্ষক শিবাশীষ মন্ডল বোর্ড নির্ধারিত ফি এর বিপরীতে ছাত্র ছাত্রীদের নিকট থেকে সেশন চার্জ ৫০০ ও ৯বম শ্রেনী থেকে নিবন্ধন ফি বাবদ ৫০০ টাকা আদায়ে লক্ষে শ্রেণী কক্ষে যেয়ে চাপ প্রয়োগ করছে।
ছাত্র ছাত্রীদের নিকট থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করছেন এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধান শিক্ষক শিবাশীষ মন্ডল অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে তিনি বলেন, পরিপত্র অনুযায়ী ছাত্র ছাত্রীদের নিকট থেকে সেশন চার্জ ৫০০ ও নিবন্ধন বাবদ ৫০০টাকা নেওয়া হচ্ছে। মুখে এধরনের পরিপত্রের কথা বললেও কোন প্রকার কাগজ দেখাতে পারেন নি। এছাড়া বোর্ড নির্ধারিত ফি কত সে বিষয়ে জানতে চাইলে বিভ্রান্তিমূলক তথ্য দিতে শুরু করেন। তার দেওয়া তথ্যের প্রমান দিতেও ব্যর্থ তিনি। কথোপকথনের একপর্যায়ে তিনি বলেন, অতিরিক্ত অর্থ যেটা নেওয়া হয় সেটা স্কুলের রক্ষনাবেক্ষন, ক্রিয়া, স্কাউটসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কাজে লাগানো হয়।
শিক্ষা মন্ত্রণালয় মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিভাগ বেসরকারি মাধ্যমিক-১ বাংলাদেশ সচিবালয়, ঢাকা কর্তৃক ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি সংক্রান্ত পরিপত্র অনুযায়ী মফস্বল এলাকায় সেশন চার্জ সহ ভর্তি ফি সর্বসাকুল্যে ৫০০ টাকা নেওয়ার কথা বলে থাকলেও কলবাড়ি নেকজানিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শুধুমাত্র সেশন চার্জে নেয়া হচ্ছে ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা।
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ ধরনের অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার সুযোগ আছে কিনা জানতে চাইলে উপজেলা শিক্ষা অফিসার নূর মোহাম্মদ তেজারাত বলেন, ম্যানেজিং কমিটি ও স্কুল কর্তৃপক্ষ রেজুলেশনের মাধ্যমে সামান্য পরিমাণ সেশন ফিস নিতে পারবে, তবে সেটা থাকতে হবে সহনীয় পর্যায়ে।
বোর্ড নির্ধারিত নিবন্ধন ফি ব্যতিরেকে কোনরকম অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের সুযোগ নেই। যদি কোন প্রতিষ্ঠান অতিরিক্ত অর্থ গ্রহণ করে তাহলে সে প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকলে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

কলবাড়ি নেকজানিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শিবাশীষ মন্ডল বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে স্কুলের টাকা নয়ছয় করেন এমন ক্ষোভ সহকারী শিক্ষকদের কন্ঠে শোনা যায়। সহকারী শিক্ষকদের অভিযোগের কিছু সত্যতাও মিলেছে।
বিগত কয়েক বছর আগে স্কুলের টাকা থেকে সুপেয় পানির সমস্যা সমাধানে একটি বেসরকারি সংস্থাকে ৭০হাজার টাকা ঘুষ দিয়েছেন বলে জানান তিনি। অথচ সেটার কোন সত্যতা পাওয়া যায়নি। আগামী পর্বে এটি নিয়ে একটি অনুসন্ধানমূলক রিপোর্ট প্রকাশ করা হবে।

 

add 1


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

আজকের দিন-তারিখ

  • সোমবার (রাত ১১:২৫)
  • ২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৮ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি
  • ১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল)